শিরোনাম
সিলেট পরিবেশ অধিদপ্তর অফিসের অনিয়মে নাজেহাল সাধারণ নাগরিকরা, সচেতন নাগরিক ফোরামের মানববন্ধন নবীগঞ্জ থানার ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা আটক ৮ সিলেটে ৩ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ডিজিটাল সুরক্ষা-নিরাপত্তা শীর্ষক কর্মশালা ও ইফতার অসুস্থ আলহাজ্ব সৈয়দ মকবুল হোসেন মাখন মিয়ার শয্যাপাশে সদর দক্ষিণ নাগরিক কমিটি’র নেতৃবৃন্দ লাইফ সাইন্স মেডিকেল টেকনোলজি ট্রেনিং ইনস্টিটিউট এর উদ্যোগে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে কক্সবাজারে সামরাই খাল উদ্ধারে পরিবেশবাদী সংগঠনের মানববন্ধন ও বিশ্ব পানি দিবস পালিত চৈত্রের বৃষ্টি, আমের জন্য আশীর্বাদ না অভিশাপ ভারতীয় চলচ্চিত্রের অভিনেত্রী রানী মুখার্জীর শুভ জন্মদিন আজ মা’গো———- ওও —————মা’গো নবীগঞ্জে বাগাউড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ জসিম উদ্দিন (সেলিম) এর দুর্নীতি অনিয়মের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:২৬ পূর্বাহ্ন

সিলেট সিটি করপোরেশনের অযাচিত অভিযানে ক্ষুব্ধ রেস্টুরেন্ট ব্যবসায়ীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১ নভেম্বর, ২০২২
সিলেট সিটি করপোরেশন

বিজ্ঞাপন

সিটি করপোরেশনের বিরুদ্ধে অযাচিত অভিযানে’র অভিযোগ তুলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ‘বাংলাদেশ রেঁস্তোরা মালিক সমিতি’র সিলেট জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ। তারা এ বিষয়ে মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) দুপুরে সিসিক মেয়র আরিফুল হক বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

তবে মেয়র আরিফ বিদেশে অবস্থান করায় তাঁর পক্ষে গ্রহণ করেছেন ভারপ্রাপ্ত মেয়র ও সিসিকের ২৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌফিক বক্স লিপন। অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করেছেন।

অভিযোগপত্রে উল্লেখ, সিলেট মহানগরীতে অবস্থিতি হোটেল, রেঁস্তোরা ও রেস্টুরেন্টে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, সিভিল সার্জনের কার্যালয়, ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর, বিএসটিআই, কলকারখানা অধিদপ্তর, পরিবেশ অধিদপ্তর থেকে নির্দিষ্ট সময় পর পর পরিদর্শন করা হয় এবং প্রয়োজনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

অনেক সময় লাভজনক ব্যবসা না হলেও প্রতি মাসে নির্দিষ্ট পরিমাণে ভ্যাট দেন সিলেটের রেস্টুরেন্ট ব্যবসায়ীরা। এই অবস্থায় গত ২৭ সেপ্টেম্বর সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে বড় একটি টিম নগরীর বন্দরবাজার এলাকায় ৫/৬ টি রেস্টুরেন্টে এবং ৩১ সেপ্টেম্বর মেডিকেল রোডের বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

অতি তুচ্ছ কারণে কয়েকটি প্রতিষ্ঠানকে  ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা করা হয়। দুটি রেস্টুরেন্টের মালিক সাথে সাথে জরিমানার টাকা দিতে না পারায় গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়া হয়। পরবর্তীতে তারা জরিমানা দিয়ে ছাড়া পান। যা সিলেটের ব্যবসায়ীরে আমাদের জন্য অত্যন্ত মানহানিকর।

অভিযোগপত্রে আরও উল্লেখ, অভিযানের সময় রেস্টুরেন্টের রিজার্ভ এবং রান্না করা খাবার পর্যন্ত সিসিকের লোকজন নিয়ে যাওয়া হয়। মোবাইল কোর্টের সময় সিটি কর্পোরেশনের স্টাফরা রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষের সাথেও দুর্ব্যবহার করেন তারা। এছাড়াও সিসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে গেলে তাদের স্পেশাল সার্ভিস এবং ডিসকাউন্ট না দিলে তারা দুর্ব্যবহার করেন।

এ বিষয়ে সিসিকের ভারপ্রাপ্ত মেয়র ও সিসিকের ২৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌফিক বক্স লিপন বলেন- লিখিত অভিযোগটি খতিয়ে দেখা হবে। তবে সিসিকের পক্ষ থেকে এ ধরনের ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার পূর্ণ ক্ষমতা রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ