শিরোনাম
সিলেট পরিবেশ অধিদপ্তর অফিসের অনিয়মে নাজেহাল সাধারণ নাগরিকরা, সচেতন নাগরিক ফোরামের মানববন্ধন নবীগঞ্জ থানার ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা আটক ৮ সিলেটে ৩ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ডিজিটাল সুরক্ষা-নিরাপত্তা শীর্ষক কর্মশালা ও ইফতার অসুস্থ আলহাজ্ব সৈয়দ মকবুল হোসেন মাখন মিয়ার শয্যাপাশে সদর দক্ষিণ নাগরিক কমিটি’র নেতৃবৃন্দ লাইফ সাইন্স মেডিকেল টেকনোলজি ট্রেনিং ইনস্টিটিউট এর উদ্যোগে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে কক্সবাজারে সামরাই খাল উদ্ধারে পরিবেশবাদী সংগঠনের মানববন্ধন ও বিশ্ব পানি দিবস পালিত চৈত্রের বৃষ্টি, আমের জন্য আশীর্বাদ না অভিশাপ ভারতীয় চলচ্চিত্রের অভিনেত্রী রানী মুখার্জীর শুভ জন্মদিন আজ মা’গো———- ওও —————মা’গো নবীগঞ্জে বাগাউড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ জসিম উদ্দিন (সেলিম) এর দুর্নীতি অনিয়মের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের
বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:২৬ পূর্বাহ্ন

চৈত্রের বৃষ্টি, আমের জন্য আশীর্বাদ না অভিশাপ

প্রকাশিত মোঃ মুনছুর হেলাল সিরাজগঞ্জ
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২২ মার্চ, ২০২৪

বিজ্ঞাপন

চৈত্রের বৃষ্টি, আমের জন্য আশীর্বাদ না অভিশাপ

শিল্পী আক্তার, রংপুর ব্যুরো

রংপুর জেলার আমি চাষীরা মনে করতেছে
চৈত্রের প্রথম সপ্তাহের দিনভর বৃষ্টিতে আমের মুকুলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তবে মুকুল থেকে গুটিতে পরিণত আমের জন্য এই বৃষ্টি আশীর্বাদ বলছেন কৃষি কর্মকর্তারা।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) দিবাগত রাত থেকে বুধবার (২০ মার্চ) সন্ধ্যা পর্যন্ত থেমে থেমে বৃষ্টি হয়। এখনো আকাশ মেঘাচ্ছন্ন রয়েছে যেকোনো সময় নামতে পারে বৃষ্টি।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর জানিয়েছে, যেসব গাছে এখনও মুকুল ফুটে আমের গুটি হয়নি সেসব গাছের মুকুল ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তবে প্রায় গাছই ইতোমধ্যে মুকুল থেকে আমের গুটিতে পরিণত হয়েছে। এসব গুটির দ্রুত বৃদ্ধি ও ঝরে পড়া রোধ করবে এই বৃষ্টি।

মঙ্গলবার দিবাগত মধ্যরাতে আকাশ মেঘলা হলে বৃষ্টি শুরু হয়। বুধবার ভোরের দিকে গুঁড়িগুঁড়ি হয়ে নামে এই বৃষ্টি। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বৃষ্টির বেগ বাড়ে। দুপুরের পর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চলে এই বৃষ্টি।এ জেলার আমচাচীরা বলেন, এবার আমের অফ ইয়ার। এমনকি গতবছরের তুলনায় প্রায় ৩০ শতাংশ কম গাছে আমের মুকুল এসেছে। মৌসুমের শুরুতেই এমন বৃষ্টি মুকুলের ক্ষতির পাশাপাশি ফলনেও প্রভাব ফেলবে। তাছাড়াও আগামীতে অতিবৃষ্টি অনাবৃষ্টিসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ রয়েছে। এনিয়ে আমচাষিদের মনে আতঙ্ক কাজ করছে। রংপুর জেলার আমি চাষীরা মনে করতেছে এ সময়ের বৃষ্টি আমের জন্য উপকার ও অপকার দুটোই আছে। সাধারণত আবহাওয়ার কারণে এবার মুকুল আসতে দেরিতে এসেছে। তাই এ বছর গাছে আমের গুটিও দেরিতে হয়েছে। যেসব গাছে আমের মুকুল এখনও গুটিতে রাপান্তরিত হয়নি, সেসব গাছের মুকুলের ক্ষতি হবে। তবে মুকুল ফোটে যেসব আমগাছে গুটি বের হয়েছে, সেসব গাছের জন্য এ খুবই উপকারী এই বৃষ্টি। আমের গুটি বেড়ে উঠতে সহায়ক হবে চৈত্রের বৃষ্টি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ